সে অনেকদিন আগের কথা..একদা ফুটবল-ক্রিকেট-হকি-হ্যান্ডবল মাঠও ভরে যেত দর্শকে

4sports

…ফুটবল-ক্রিকেট-হকি ও হ্যান্ডবল মাঠের দর্শকভরা মহুর্ত গুলো আজও আলোড়িত করে…

…সে অনেক অনেক অনেক দিন আগের কথা…একদা ঢাকার জনপ্রিয় ফুটবল-ক্রিকেট-হকি এমনকি হ্যান্ডবল লীগের খেলা দেখতেও মাঠ ভরা দর্শকের সমাগম হত…সময় সময়ত তিল ধরনের যায়গাও থাকতনা মাঠে বসে খেলা দেখার…বিশেষ করে জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকা ফুটবল খেলা নিয়ে ছিলো কতনা আকর্ষন-মাতামতি-উম্মেদনা-উত্তেজনা…ছিলো প্রানের স্পন্দন…সে সময়টায় যেন দেশ ব্যাপি উড়ানো হত সাদা-কালোর মোহমেডান এবং আকাশী রংয়ের আবাহনীর পতাকা…বলতে হয় কে কার চেয়ে বড় পতাকা উড়াবে এনিয়েও চলত লড়াই…আর নানা ঘটনা কেন্দ্র করে মাঠে ইটপাটকেল নিক্ষেপের মাঝে ভয়াবহ মারামারি হাঙ্গামার প্রদর্শন যেন ছিলো নিয়মিত ঘটনা…’৮২তে মাঠের সংঘর্ষ ও মারামরির ঘটনা কেন্দ্র করে ফুটবলারদের জেলে কারা ভোগের ঘটনাও ঘটেছে একবার…স্বল্প সময়ের জন্য জেল খেটেছিলেন আবাহনীর চার ফুটবলার চুন্নু-আনোয়ার-হেলাল ও সালাউদ্দিন…এছাড়া আরেকবার ‘৮৭ সালে মোহামেডান-আবাহনীর দুদলনায়ক রনজিত ও আসলাম কায়দা করে খেলা সমাপ্ত করে নিজেদের যুগ্ম চ্যাম্পিয়নের আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠলে পরবর্তীতে দুজনেই সাসপেন্ডের কবলে পড়েছিলেন…

4sports-2

…বামে আঘাত প্রাপ্ত ক্রীড়াজগতের ফটো সাংবাদিক খন্দকার তারেক…মাঝে হামলার শিকার রেফরী রফিক…ডানে আঘাত প্রাপ্ত এক পুলিশ মাটিতে লুটিয়ে পড়েছেন…

AKC vs MSC-023w

…অতীত দিনের আর বর্তমানের ঢাকা ষ্টেডিয়ামের দর্শক চিত্র বড় হতাশায় ডবায় ক্রীড়ামোদীদের না বল্লেই নয়…

…বিশেষ করে বড় দুদলের খেলায় দুপক্ষের রক্তক্ষয়ী সংগর্ষে শত শত মানুষের হতাহত শুধু নয় মৃত্যুও ঘটেছে কজনের…মার খেয়ে মাথা ফাটিয়েছেন খেলোয়াড়রা শুধু নয় দর্শক-কর্মকর্তা-ডাক্তার-রেফারী-পুলিশরাও…এমনকি ঘটে যাওয়া বড় ধরনের হাঙ্গামায় মার খাওয়ার হাত থেকে বাদ যায়নি সাংবাদিকরাও…ভাংচুর-লুটপাটেরও ঘটনা ঘটেছে অনেক…মারামারি আয়ত্বে আনতে পুলিশের টিয়ার গ্যাসে রীতিমত দিশেহারা হয়ে উঠত দর্শকরা…মোহামেডান-আবাহনী বড় এদুলের খেলায় হেরে যাওয়া দলের খেলোয়াড়রাত উত্তেজিত সমর্থকদের ভয়ে ড্রেসিং রুমেই আটকা পড়ে থাকত দীর্ঘক্ষন…শেষমেষ পুলিশী পাহাড়ায় নিরাপদে বের হওয়া হত ক্লাব তাবুর দিকে…এমনকি পরদিন ক্লাব হতে বেরও হওয়া হতনা ভয়েই…বর্তমান সময়ে যা স্বপ্ন দেখার মতই ব্যপার…কোথায় যে হারিয়ে গেছে খেলা দেখার সেই পাগল করা নেশা আর দারুন ভাবে মেতে থাকার ব্যাপর গুলো…ভাবাই যায়না আজকালত মাঠে দর্শকই হয়না তেমন…যা হয় তা যেন হাতেই গনা যায়…অবাক হলেও সত্য একটা সময় বড় দুদল মোহামেডান ও আবাহনীর ঘাম ঝড়ানো অনুশীলন দেখার জন্য যে দর্শক সমাগম ঘটত তার সমপরিমানও মাঠে চোঁখে পড়েনা…কেন জানি ফুটবলাররা তাদের সেরা নৈপূন্যের ঝলক দেখিয়ে আর মাঠে টানতে পারছেননা দর্শকদের…এর পেছনে অবশ্য রয়েছে নানা কারন…সময়ে অনেক কিছুই বদলে যায়…বদলেও গেছে…হয়তবা আবারও বদলে যাবে সামনের কোন এক সময় এমহুর্তের চিত্রও…

...মোহামেডন ও আবাহনীর ক্রিকেট লীগ ম্যাচেও গ্যালারী ভরা দর্শক...

…মোহামেডন ও আবাহনীর ক্রিকেট লীগ ম্যাচেও গ্যালারী ভরা দর্শক…

0-msc-akc 1

One Response to “সে অনেকদিন আগের কথা..একদা ফুটবল-ক্রিকেট-হকি-হ্যান্ডবল মাঠও ভরে যেত দর্শকে”

  1. Rezaul

    May 11. 2016

    I have been in America for many years and a great fan of Dhaka Abahani . I don’t remember the Abahani – Mohammedan football league match of both Ist round and super league match result of 1977 , 1980 , 1982 and
    1983 . Plz , anybody can give me the information ?

    Reply to this comment

Leave a Reply to Rezaul